• ঢাকা শনিবার, ১৫ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১লা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

কাশিমপুরে রুবেল নামে এক কলেজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

অপরাধ
|  ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৭:০৭ | আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৭:০৭

মেহেদী হাসান, বিশেষ প্রতিনিধি।

গাজীপুরের কাশিমপুর থানাধীন ৪ নং ওয়ার্ডের সারদাগঞ্জ এলাকা থেকে রুবেল (২০) নামের মরদেহ উদ্ধার করেছে কাশিমপুর থানা পুলিশ। হাতিমারা স্কুলের নবম শ্রেণি পড়ুয়া তার একমাত্র ছোট ভাই রবিউল ইসলাম (১৫) জানান, আমার ভাই সাভার কলেজের ২য় বর্ষে পড়ে। কলেজ বন্ধ থাকায় সংসারের খরচ জোগাতে ভবানিপুরের আশরাফ এর থেকে একটি অটো ক্রয় করে দীর্ঘ দিন ধরে চালিয়ে আসছে ।

আজ ভোরে মাথায় আঘাতের চিহ্নসহ, মুখমন্ডলে রক্তাক্ত অবস্থায় তার মরদেহ সারদারগঞ্জ বড় কবরস্থানের পাশে পাওয়া যায়। এ সময় তার পরিহিত মাফলার ও মাস্ক আলাদা স্থানে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। সে দীর্ঘ পাঁচবছর যাবৎ কাশিমপুরের ভবানীপুর এলাকায় ভাড়া থাকত। এবং তার ক্রয়কৃত অটোরিক্সা বটতলার হারেজের গেরেজে নিয়মিত রাখত। সে নওগাঁ জেলার রানী নগর থানার বেবরাগাদি গ্রামের সিরাজুল ইসলাম ও রৌশনারা বিবির ছেলে। নিহত রুবেলের পিতা মাতা বেক্সিমকো গ্রুপে চাকুরী করে। এসময় গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অপরাধ বিভাগের উপ পুলিশ কমিশনার মোঃ জাকির হাসান, কোনাবাড়ী জোনের এসি, কাশিম পুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবে খোদা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

পরে ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়।কাশিমপুরে রুবেল নামে এক কলেজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মেহেদী হাসান। বিশেষ প্রতিনিধি। গাজীপুরের কাশিমপুর থানাধীন ৪ নং ওয়ার্ডের সারদাগঞ্জ এলাকা থেকে রুবেল (২০) নামের মরদেহ উদ্ধার করেছে কাশিমপুর থানা পুলিশ। হাতিমারা স্কুলের নবম শ্রেণি পড়ুয়া তার একমাত্র ছোট ভাই রবিউল ইসলাম (১৫) জানান, আমার ভাই সাভার কলেজের ২য় বর্ষে পড়ে। কলেজ বন্ধ থাকায় সংসারের খরচ জোগাতে ভবানিপুরের আশরাফ এর থেকে একটি অটো ক্রয় করে দীর্ঘ দিন ধরে চালিয়ে আসছে । আজ ভোরে মাথায় আঘাতের চিহ্নসহ, মুখমন্ডলে রক্তাক্ত অবস্থায় তার মরদেহ সারদারগঞ্জ বড় কবরস্থানের পাশে পাওয়া যায়। এ সময় তার পরিহিত মাফলার ও মাস্ক আলাদা স্থানে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। সে দীর্ঘ পাঁচবছর যাবৎ কাশিমপুরের ভবানীপুর এলাকায় ভাড়া থাকত।

এবং তার ক্রয়কৃত অটোরিক্সা বটতলার হারেজের গেরেজে নিয়মিত রাখত। সে নওগাঁ জেলার রানী নগর থানার বেবরাগাদি গ্রামের সিরাজুল ইসলাম ও রৌশনারা বিবির ছেলে। নিহত রুবেলের পিতা মাতা বেক্সিমকো গ্রুপে চাকুরী করে। এসময় গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অপরাধ বিভাগের উপ পুলিশ কমিশনার মোঃ জাকির হাসান, কোনাবাড়ী জোনের এসি, কাশিম পুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবে খোদা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়